FeaturedTips & Tricks
Trending

Gmail-এর ৫টি গোপন ট্রিকস! জেনে রাখুন, কাজে দেবে

GMail-এ খুব সহজেই ইনবক্স, ইমেল পাঠানো ও অন্যান্য কাজগুলো নিজের নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব।

ইমেল সার্ভিসের মধ্যে Gmail এখন সবচেয়ে প্রচলিত ও জনপ্রিয়। Google-এর ইমেল সার্ভিসের ব্যবহার তুলনামূলক অনেক সহজ এবং দক্ষ ভাবে কাজ করতে সক্ষম। কিন্তু জানেন কি Gmail-এ এমন অনেক গোপন ফিচার রয়েছে যেগুলো ব্যবহার করে খুব সহজেই ইনবক্স, ইমেল পাঠানো ও অন্যান্য কাজগুলো আরও দক্ষতার সঙ্গে এবং নিজের নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব। আসুন এই বিষয়ে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

Gmail-এ Undo ফিচারের ব্যবহার

কখনও কখনও খুব দ্রুততার সঙ্গে কাজ করতে গিয়ে আমরা মেইলে কিছু ভুল করে ফেলি। সে ক্ষেত্রে Gmail আমাদের ৫ সেকেন্ডের Undo অপশনটি দেয়। তবে ৫ সেকেন্ড অনেকের কাছেই যথেষ্ট নয়। কোনও চিন্তা নেই, Gmail-এর সেটিং অপশনে গিয়ে আমরা নিজেদের সুবিধে মতো ৫, ১০, ২০ বা ৩০ সেকেন্ড পর্যন্ত সময় বাড়াতে পারি। তবে মনে রাখতে হবে এ ক্ষেত্রে ইমেইল পাঠাতে কিন্তু তুলনামূলক ভাবে সময় বেশি লাগবে।

অপ্রয়োজনীয় ইমেইল ব্লকের ফিচার

যে সমস্ত ইমেল আমাদের প্রয়োজনে লাগে না বা বিশেষ ভাবে কোন ব্যক্তির ইমেইল আমরা দেখতে চাই না সে ক্ষেত্রে ওই ইমেলগুলোকে ব্লক করে রাখতে পারি। পরবর্তীতে সেখান থেকে কোনও ইমেইল এলে তা সোজা স্প্যাম বক্সে চলে যাবে।

ইমেইলের প্রাইভেসি বাড়াতে

অনেক সময় দেখা যায় ওয়েবে অন্যান্য সার্ভিসে সাইন আপ করতে গিয়ে অনেকগুলো প্রোমোশনাল ইমেইলের অপশন চলে আসে। তখন ইমেইল অ্যাড্রেসের সঙ্গে একটা প্লাস সাইন (+) জুড়ে দিলে আমরা বিভিন্ন সার্ভিসের জন্য বিকল্প অ্যাড্রেস তৈরি করতে পারি। এতে ওই নতুন মেল বক্সের সমস্ত মেসেজ সোজা চলে আসবে আমাদের ইমেইল অ্যাড্রেসে।

ইমেইলের গোপনীয়তা রক্ষায় ‘Confidential mode’

সাধারণত Gmail ব্যবহার করে কোনও ইমেইল পাঠালে কম্পিউটার বা স্মার্টফোনের এনক্রিপশন অপশন ছাড়া গোপনীয়তা রক্ষার আর কোনও উপায় থাকে না। কিন্তু কাউকে পাঠানো ইমেইলের গোপনীয়তা রক্ষা করতে হলে সেন্ড অপশন ক্লিক করার আগে লক আইকনে ক্লিক করে ‘Confidential’ মোড অন করা যায়। এর অর্থ পাঠানো ইমেইলটির এক্সপেয়ারি ডেট নির্ধারণ করে দেওয়া এবং প্রাপককে ওই ইমেইলের প্রিন্ট, কপি বা ফরওয়ার্ড করা থেকে বিরত রাখা।

কীবোর্ডের শর্টকাট ব্যবহার

স্ক্রিনের দিকে মনোনিবেশ করে বা দ্রুত ইমেইল পাঠানোর জন্য Ctrl+Enter ক্লিক করতে হবে। পুরনো ড্রাফট ডিলিট করার জন্য Ctrl+Shift+D ক্লিক করতে হবে। এছাড়া CtrlএবংShift ক্লিক করে C প্রেস করলে CC প্রাপক এবং B ক্লিক করলে BCC প্রাপকের তালিকা সহজেই আমাদের সামনে চলে আসবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *